--------------------------------------------------------------------------------

শংকামুক্ত: মেয়র আনিস শীঘ্রই দেশে ফিরছেন

Anisul Hoque

ঢাকা ব্যুরো : গত চার দিন ধরে লন্ডনের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক। তাকে আইসিইউতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তিনি মস্তিষ্কের রক্তনালির প্রদাহজনিত রোগে আক্রান্ত। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তিনি এখন শঙ্কামুক্ত। ঈদের পর দেশ ফিরতে পারবেন। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন মেয়রের একান্ত সচিব এ কে এম মিজানুর রহমান জানান, বাংলাদেশের চিকিৎসকরা সঠিক রোগ নির্ণয় করতে পারেননি। গত ১৩ আগস্ট তিনি (মেয়র) লন্ডনের একটি হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানকার চিকিৎসকরা তার রোগ নির্ণয় করেছেন। সেখানে তার চিকিৎসায় একটি মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। মিজানুর রহমান বলেন, লন্ডনের বিস্তারিত »

মেয়র আনিসুল হক ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত

মেয়র আনিসুল হক এখনো চিকিৎসাধীন

ডেস্ক রিপোর্ট : ​ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক লন্ডন হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন। এক মাস ধরে তিনি লন্ডনে অবস্থান করছিলেন। চারদিন আগে অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাকে লন্ডন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মেয়রের ব্যক্তিগত সচিব মিজানুর রহমান এক মুঠোফোন বার্তায় গণমাধ্যমকর্মীদের এ তথ্য জানান। ওই বার্তায় বলা হয়, মস্তিষ্কজনিত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন মেয়র আনিসুল হক। তার এই অসুখ বাংলাদেশে ধরা না পড়লেও তিনি প্রায় দুই মাস যাবৎ একাধিক শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন। চিকিৎসকেরা স্টেরয়েডসহ বিভিন্ন ওষুধ দিয়েছেন। এখন আইসিউতে আছেন। দ্রুত সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে মেয়র দোয়া চেয়েছেন। বিস্তারিত »

মুক্তিেযোদ্ধাদের হোল্ডিং ট্যাক্স মওকুফের ঘোষণা

Anisul Hoque Sayed Khokon, DNCC, DSCC

বাংলা২৪.কম.বিডি : ঢাকা শহরের বসবাসরত মুক্তিযোদ্ধাদের হোল্ডিং ট্যাক্স মওকুফের ঘোষণা দিয়েছেন দুই সিটি করপোরেশন। শনিবার দুপুর ১২ টার দিকে রাজধাণীর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে মুক্তিযোদ্ধাদের সংসর্ধনা ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি কপোরেশন (ডিএসসিসি) এ ঘোষণা দেয়। এছাড়া অসহায় ও দুস্থ মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য একটি তহবিল (দুস্থ ফান্ড) গঠন করা হবে বলেও জানানো হয়। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ডিএনসিসি ও ডিএসসিসি। অনুষ্ঠানে প্রায় তিন হাজার মুক্তিযোদ্ধা ও মু্ক্তিযোদ্ধা পরিবার সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।