কোম্পানির চেয়ারম্যান থেকে ডেলিভারিম্যান হবার গল্প

অবাক হচ্ছেন!
ভাবছেন, আহারে!! কে যে এমন দুর্ভাগা!! আর কিভাবেই বা হলো?
তাহলে শুনুন, ঘটনাটা ঘটেছে বাংলাদেশেই। আর কোম্পানির চেয়ারম্যান থেকে ডেলিভারি ম্যান হবার গল্পটা আর কারো না,
গল্পটা বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান রকমারি ডট কম এর চেয়ারম্যানের।
যিনি ২য় বারের মত আবার গিয়েছিলেন রকমারি ডট কম এ অর্ডার করা বিভিন্ন পণ্য ডেলিভারিতে।

ফিজিক্যাল স্টোরের ক্ষেত্রে একজন দায়িত্বশীল ব্যাক্তি চাইলেই প্রতিনিয়ত দেখতে পারেন তাদের বিক্রেতা ক্রেতাদের সাথে কিভাবে কথা বলছেন, কিংবা কোথায় কি ধরনের পরিবর্তন আনা সম্ভব। কিন্তু ই-কমার্স ব্যাবসার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ব্যাপার হলো পুরো ব্যাবসাটাই হয়ে থাকে আস্থার উপর ভিত্তি করে। ডেলিভারিম্যান ছাড়া ক্রেতা আর বিক্রেতার মাঝে কোন দেখা হয় না। তাই একজন ক্রেতা কোম্পানির সার্ভিস নিয়ে কেমন ভাবছেন, কতটা সুখী হচ্ছেন সেসব জানার ইচ্ছা থাকে সবার। তাছাড়া যারা ডেলিভারি দিচ্ছেন তারাও ক্রেতাদের সাথে কেমন ব্যবহার করছেন আর কোথায় উন্নতি করা সম্ভব সেটা জানার চেষ্টাই একটা কোম্পানিকে নিয়ে Good থেকে Great অবস্থায়।

Rokomari

এসব জানার আগ্রহ থেকেই রকমারি ডট কম এর চেয়ারম্যান মাহমুদুল হাসান সোহাগ ২য় বারের মত গিয়েছিলেন পন্য বিপণনে। ক্রেতা ও বিপণন কর্মীদের সাথে ঘুরেছেন এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায়। সবার সাথে কথা বলে জানার চেষ্টা করেছেন সার্ভিসের কোথায় কোথায় ইম্প্রুভমেন্ট প্রয়োজন। কারন রকমারি ডট কম ব্যাবসার পুরোটাই সাজানো হয়েছে ক্রেতাদের সন্তুষ্টির দিকগুলো মুখ্য রেখে।

কোম্পানির চেয়ারম্যানের হাত থেকে পণ্য নিতে পেরে সবাই বেশ খুশী। তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়ায় রকমারির প্রতি সবাই তাদের আস্থার কথা জানান ।

গ্রাহককে প্রায়োরিটি দেয়ার প্রতি রকমারির আন্তরিকতাই রকমারিকে অন্যসকল ই-কমার্স থেকে আলাদা করেছে এবং ভবিষ্যতেও করবে বলে তারা বিশ্বাস করেন।

Facebook Comments