--------------------------------------------------------------------------------

নোয়াখালীর সাংস্কৃতিকে এগিয়ে নিতে চান কাবিলা খ্যাত অভিনেতা পলাশ।

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীর কালিকাপুর গ্রামের এ সন্তান ইতিমধ্যে তরুণদের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন। বাংলাদেশের তরুণ অভিনেতাদের মধ্যে শীর্ষ ৫ এ রয়েছে তার নাম। নোয়াখালীর ইতিহাস, ঐতিহ্য নিয়ে অভিনয় করা ছোট পর্দার এ জনপ্রিয় অভিনেতা ইতিমধ্যে ২০টি নাটকে অভিনয় করেছেন। যার মধ্যে ব্যাচলর পয়েন্ট নাটকি ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন।

মোস্তফা সারওয়ার ফারুকীর হাত ধরে অভিনয় জগতে আসা পলাশের পরিচালনার করার ইচ্ছা থাকলেও বর্তমানে তিনি অভিনয় নিয়ে দারুন ব্যস্থ সময় পার করছেন। পলাশের সবচেয়ে নাটকে পরিচালনা করা কাজল আরেফিন অমির নাটকে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।

তিনি আতিক জামান পরিচালিত রেদোয়ান রনির তত্ত¦াবধায়নে ইউনিসেফের স্বপ্ন ডানায় অভিনয় করেছেন। আরেফিন অমির পরিচালিত ব্যাচেলর পয়েন্ট নাটকটি শনি, রবি, সোমবার রাত ৮:৩০ মিনিটে প্রচারিত হয়। ১৫২ পর্বের ধারাবাহিক নাটকটির ৪৭ পর্ব প্রকাশিত হয়েছে।

তার পরিচালিত প্রথম নাটক ফ্রেন্ড উইথ বেনিফিট। তার অভিনিত নাটকের মধ্যে ট্যাটু, ট্যাটু-৩, জার্নি বাই লন্স, একটি সন্দেহের গল্প, জাস্ট চিল, ইনভায়টেশন, পাসপোর্ট ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। মুক্তি পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে কলেজ ব্যাংক, থার্ড পার্সন প্লুরাল নাম্বার। ১৭ তারিখ থেকে সুটিং শুরু হবে এক্স বয় ফ্রেন্ড নামক একটি নাটকে।

জিয়াউল হক পলাশ ১৯৯৩ সালে সোনাইমুড়ী উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের পূর্ব কালিকাপুর গ্রামের এক মুসলিম সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্ম গ্রহণ করে। তার পিতা মজিবুল হক পেশায় একজন ইঞ্জিনিয়ার। তিনি ২০১০ সালে গর্ভাঃ ল্যাবরেটরী হাইস্কুল থেকে এসএসসি পাশ ও ২০১৩ সালে এইচএসসি পাশ করেন। বর্তমানে তিনি তিতুমির কলেজ থেকে ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিষয়ে অনার্স শেষ করেছেন।

অভিনয়ের বিষয়ে জিয়াউল হক পলাশ বলেন, ছোট বেলা থেকে অভিনয়ের প্রতি দারুণ আকৃষ্ট ছিলাম। সে ইচ্ছার প্রতিফলনে ভালো কিছুর করার জন্য কষ্ট করে যাচ্ছি।

ভবিষৎতে পরিকল্পনা নিয়ে পলাশ বলেন, পরিচালনা করা আমার মূল টার্গেট। ভবিষৎতে একটি হলেও ফিল্ম তৈরী করবো।

নোয়াখালীর বিষয়ে তিনি বলেন, নোয়াখালীর আমার জন্মভূমি। নোয়াখালীকে ব্যাপক পরিচিতির জন্য কাজ করে যাচ্ছি। নোয়াখালীর ইতিহাস, ঐতিহ্য তুলে ধরার চেষ্ঠা করি। আমার অভিনয়ের মূল লক্ষ্য নোয়াখালীকে তুলে ধরা। নোয়াখালী নিয়ে ইতিবাচক ধারণা সৃষ্টির লক্ষ্যে আমার কাজ করা। সামনে নোয়াখালী নিয়ে স্পেশাল একটি নাটক তৈরী করবো।

Facebook Comments