বিনোদন

ইউটিউব থেকে সিলভার প্লে বাটন পেল শিল্পী ইকবাল এইচ জে!

 নাঈম হোসেন পলাশঃ বর্তমান সময়ের বেশ জনপ্রিয় এবং আলোচিত নাশিদ শিল্পী ইকবাল হোসাইন জীবন, যিনি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ইকবাল এইচ জে হিসেবেই বেশ পরিচিত। ২০১০ সালে লন্ডনে যাওয়ার পর থেকেই তিনি ইসলামী সংস্কৃতিকে সারা বিশ্বের মুসলমানদের মাঝে পৌঁছে দেয়ার মিশন নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। যদিও শিল্পী ইকবাল এই অঙ্গনে কাজ শুরু করেছিলেন ২০০১ সাল থেকেই তবুও এই নাশিদ শিল্পী বাণিজ্যিক ভাবে কিংবা বৃহত্তর পরিসরে তার প্রথম অ্যালবাম ”মেক মি ইওর ফ্রেন্ড” রিলিজ করার পরই বেশ সাড়া ফেলতে সক্ষম হয়েছিলেন।

যার ধারাবাহিকতায় ইকবাল ইংল্যান্ডের বিভিন্ন শহরে এবং আমেরিকার একাধিক স্টেটে পারফরম্যান্স করার পাশাপাশি মুনা এবং ইকনার মত বৃহত্তম মুসলিম অর্গানাইজেশনে কালচারাল ইভেন্টে নাশিদ পরিবেশন করেন। আইপিএল (ইনস্টিটিউট ফর পিস্ এন্ড লিডারশিপ, নিউ ইয়র্ক), আইটিভি বেস্ট সিঙ্গার অ্যাওয়ার্ড এবং আরাউজার এক্সট্রাঅর্ডিনারি সিঙ্গার অ্যাওয়ার্ড সহ সম্প্রতি তিনি একাধিক ন্যাশনাল এবং ইন্টারন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেন। লাব্বাইক আল্লাহ, হাসবি রাব্বি, ভালোবাসা এবং মুস্তাফা শিরোনামের বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় ইসলামিক নাশিদ ভিডিও নির্মাণের মাধ্যমে শিল্পী ইকবাল দেশে বিদেশে নাশিদ প্রেমী মানুষের হৃদয়ে তার জায়গা করে নেন, বিশেষ করে তরুণ ছেলে মেয়েরা এবং স্কুল কলেজ ইউনিভার্সিটির ছাত্র ছাত্রীরা তাঁদের সোশ্যাল মিডিয়ায় কিংবা স্মার্ট ফোনের মাধ্যমে আধুনিক এই নাশিদ ভিডিও গুলোকে সবার মাঝে ছড়িয়ে দিচ্ছেন। যারফলে খুব কম সময়ে শিল্পী ইকবাল পৌঁছে গেছেন কোটি মানুষের মাঝে, সোশ্যাল মিডিয়ায় তার রয়েছে লক্ষ্য লক্ষ্য ফ্যান এবং ফলোয়ার। সম্প্রতি ২০১৮ সালে বাংলাদেশে এসে শিল্পী ইকবাল একাধিক কনসার্ট করেছিলেন। যার টিকেট প্রোগ্রামের পূর্বেই সোল্ড আউট হয়ে যায়।




গত বছর শিল্পী ইকবাল এইচ জে তার দ্বিতীয় অ্যালবাম থেকে নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের নিয়ে ”হাসবুনাল্লাহ” নির্মাণের মাধ্যমে আবারো সবার মাঝে আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে চলে আসেন, তারই ধারাবাহিকতায় ২০১৮ সালে শিল্পী তার ফুল টীম নিয়ে মালয়েশিয়াতে নির্মাণ করেন ”হাবিবি” যা ছিল কোনো নাশিদ ভিডিও নির্মাণে সর্বোচ্চ বাজেটের গান। নাশীদটি ছিল সম্পূর্ণ আরবি ভাষায়। গত মাসেই তিনি হাবিবি রিলিজ করেন এবং দেশে বিদেশে তাঁর ভক্তদের আবারো প্রশংসা এবং ভালোবাসা অর্জন করেন। এরই মধ্যে শিল্পী ইকবাল কে তার নিজের নামের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলের এক লক্ষ্য সাবস্ক্রাইবার এর প্রথম মাইলস্টোন অর্জন করায় ইউটিউব থেকে “ক্রিয়েটর অ্যাওয়ার্ড” হিসেবে ”সিলভার প্লে বাটন” প্রদান করা হয়। পাশাপাশি ভেরিফাইড করা হয় তার অফিসিয়াল চ্যানেলটি। উল্লেখ্য অনেকেই বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নামে এই অ্যাওয়ার্ড টি পেয়ে থাকেন কিন্তু একজন বাংলাদেশী নাশিদ আর্টিস্ট এবং নিজের নামে এই অর্জনের দিক থেকে শিল্পী ইকবাল হোসাইন জীবন প্রথম।




চলতি সপ্তাহে শিল্পী ইকবাল তার ভক্তদের জন্যে আগামী জানুয়ারী মাসে সেকেন্ড অফিসিয়াল অ্যালবাম ”শো মি দা ওয়ে” রিলিজ করার ঘোষণা দিয়েছেন। এলবামটির মিউজিক ডিরেক্টর ছিলেন সময়ের জনপ্রিয় মিউজিক ডিরেক্টর পারভেজ জুয়েল। এলবামটি পাওয়া যাবে আইটিউন এবং এমাজন সহ ইন্টারন্যাশনাল সকল প্লাটফর্মে।

Facebook Comments

Related Posts