বাংলাদেশ

নোয়াখালীতে রোহিঙ্গা ঠেকাতে আদালতে রিট আবেদন।

ভাসানচর দ্বীপে (পুরানো নাম-ঠ্যাংগার চরে) রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে একটি রিট করা হয়েছে।

হাইকোর্টের আপিল ডিভিশনের বিচারপতি নাঈমা হায়দারের বেঞ্চে জনস্বার্থে রিট পিটিশনটি দাখিল করেন মনিরুল হুদা বাবন।

রিটকারীর পক্ষে আদালতে লড়বেন অ্যাডভোকেট মোশাররফ হোসেন লালটু। মামলা নাম্বার ৭০৯৮।

আন্তর্জাতিক শরণার্থী বিষয়ক আইনকে অমান্য করে বিরোধপূর্ণ অঞ্চল- উপকূল সন্দ্বীপ এবং নোয়াখালী রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসন কেন অবৈধ ও বেআইনি হবে না, তা জানতে চেয়ে জনস্বার্থে আদালতে এই রিটটি দায়ের করা হয়।

রিটটির মাধ্যমে সরকারের সংশ্লিষ্ট (স্বরাষ্ট্র -পররাষ্ট্র) মন্ত্রণালয়য়ের কাছে এর ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে।

মামলার বাদী মনিরুল হুদা বাবন সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের সন্দ্বীপের উপকূলে পুনর্বাসন করা হলে-সাড়ে চার লাখ উপকূলবাসীর জীবন হুমকির মুখে পড়বে।

রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনের ফলে মাদক, জঙ্গিবাদ এবং উগ্রপন্থী সন্ত্রাসবাদের উত্থান ঘটবে যা দেশের ৫ কোটি উপকূলবাসীর জীবনকে অনিরাপদ করে তুলবে।

তাই ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনের সিদ্ধান্ত থেকে সরকারকে সরে আসার আহবান জানাচ্ছি। একই সাথে রোহিঙ্গা পুনর্বাসনে স্থগিতাদেশ দেওয়ার ব্যাপারে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

আগামী রোববারে এই বিষয়ে শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

Facebook Comments

Related Posts